পুরুষের চুল পড়া বন্ধের উপায়

0

নিয়মিত চুল ঝরে যাওয়া একটা প্রাকৃতিক নিয়ম। প্রতিদিন পুরুষের প্রায় শতাধিক চুল পড়ে আবার শতাধিক চুল গজায়। সমস্যা হয় তখন, যখন শারীরিক কারণে যে পরিমান চুল পড়ে সেই পরিমান চুল গজায় না।

এই সমস্যা বুঝতে পারার সাথে সাথেই বিশেষ যত্ন নিলে অনেকটাই সমাধান করা সম্ভব। এজন্য চুলের বিশেষ যত্ন নিতে হয়। চুল পড়ে যাওয়ার নির্দিষ্ট কোনো কারন নেই, অনেক কারনেই চুল ঝড়তে পারে। কিন্তু নিয়মিত এবং সঠিক ভাবে চুলের যত্ন নিলে চুল পড়া স্বাভাবিকের তুলনায় কমে যায়।
চুল পড়ে যাওয়া রোধ করতে চিকিৎসকরা বেশকিছু পরামর্শ দিয়ে থাকেন। এখানে সেগুলো তুলে ধরছি।

* যে কোন ধরণের মাদকদ্রব্য চুলের প্রধান শত্রু। তাই সবসময় মদ্যপান ও মাদক থেকে বিরত থাকুন।
* ধূমপান শুধু স্বাস্থ্যের জন্যে ক্ষতিকর নয়। সঠিক রক্ত সঞ্চালনের ক্ষেত্রেও বাধা সৃষ্টি করে তাই ধুমপানে অত্যাধিক পরিমাণে চুল পড়ে।
* চুলের গোড়া শক্ত করতে বেশি পরিমাণে পানি খাওয়া উচিৎ। পানি শুধু চুলের জন্য নয় স্বাস্থ্য ঠিক রাখার জন্যেও অত্যাবশ্যকীয় ।
* ভিজা চুল টাওয়েল বা শক্ত কাপড় দিয়ে কখনো মোছা উচিৎ নয়।
* মানসিকভাবে কখনো চাপে থাকা উচিৎ নয়। মানসিক চাপ কমানোর জন্যে মেডিটেশন ও যোগব্যায়াম করা যেতে পারে।
* প্রতিদিন হালকাভাবে শ্যাম্পু দিয়ে গোসল করলে মাথা পরিষ্কার হয় এতে চুল পড়াও বন্ধ হয়।
* শুধু শরীর সুস্থ্য রাখার জন্যে নয়, চুল পড়া বন্ধের জন্যেও বেশি বেশি ভিটামিন সমৃদ্ধ খাবার খেতে হবে। এক্ষেত্রে ভিটামিন ‘এ’ এবং ‘ই’ আছে এমন খাদ্য বেশি সুফল বয়ে আনবে।
* পেঁয়াজ, রসুন ও আদার রস দিয়ে মাথা ম্যাসেজ করলেও উপকার পাওয়া যায়।
* খাবার তালিকায় আমিষ জাতীয় খাদ্যের পরিমাণ বাড়াতে হবে। এক্ষেত্রে মাছ, মাংস, ডিম ও দুধ বেশি করে খেতে হবে।
* এছাড়া সবসময় শরীরের অন্যান্য অঙ্গের যত্ন নেওয়া উচিৎ। কারণ শরীরের অন্য সব অঙ্গের সাথে চুলের অবিচ্ছেদ্য সম্পর্ক রয়েছে।

পুরুষ একটি সৌন্দর্যের প্রতীক হচ্ছে চুল। চুল বেশি পড়তে থাকলে নিয়মিত চিকিৎসকের সাথে যোগাযোগ রাখতে হবে। শরীরের অন্যান্য অঙ্গ দূর্বল হয়ে পড়লে তার প্রভাব চুলের ওপর পড়তে পারে। তাই শরীরের কোন অঙ্গে অসুস্থতা বোধ করলে হেলাফেলা করা যাবে না। মনে রাখতে হবে চুল হোক, মাথা হোক কিংবা চোখ-মুখ….জীবন কিন্তু একটাই।