সম্পর্কে কিছু সীমানা নির্ধারণ করা থাকলে তা সুন্দর হয়। প্রতীকী ছবি।সম্পর্কের মধ্যে কাজ করে আবেগ। কিন্তু তাই বলে আবেগে ভেসে যাওয়া ঠিক নয়। সুস্থ ও সুন্দর সম্পর্কের ক্ষেত্রে কিছু আবেগে জোরালো বাঁধ দিতে হবে। কিন্তু সম্পর্কে জড়ালে অন্য আরেকজন মানুষের চাওয়া-পাওয়ার প্রতি এত বেশি লক্ষ রাখা শুরু হয় যে আবেগ বাঁধ মানতে চায় না। সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে যে বিষয়গুলোয় খেয়াল রাখবেন:

‘না’ বলতে শিখুন
অনেকেই আছেন, সম্পর্কে জড়ানোর পর ‘না’ বলাটাই যেন ভুলে যান। অনেক সময় ব্যাখ্যা বা কোনো অজুহাত না দেখিয়ে সরাসরি ‘না’ বলে দেওয়ার প্রয়োজন হতে পারে। দ্বিধা না করে ‘না’ বলুন। মনে রাখবেন, ‘না’ কিন্তু একটি পুরো বাক্যর চেয়ে বেশি কিছু। নিজের ‘ভালোমানুষি’ দেখাতে স্বকীয়তা বিলিয়ে দেওয়া ঠিক নয়। সম্পর্ক মজবুত করতে অনেক ক্ষেত্রে ‘না’ বলতে শেখাটাও জরুরি।

অন্যকে মাথা ঘামাতে দেবেন না
অনেকেই আছেন, যাঁরা সম্পর্কে জড়ানোর পর যার-তার কাছে আলোচনা শুরু করেন। সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে অনেকের কাছে ছোটেন। কিন্তু মনে রাখতে হবে, যখন ছোট বা বড় যেকোনো বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার প্রশ্ন আসে, তখন সবাইকে খুশি করা যায় না। নিজের সিদ্ধান্তে অন্যকে মাথা ঘামাতে দেওয়া ঠিক নয়। নিজের সিদ্ধান্তের প্রভাব যাদের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট নয়, তাদের দূরে রাখতে পারলেই সম্পর্ক ভালো থাকে।

অন্যের সমস্যা টেনে না আনা
সম্পর্কে জড়ালে অনেকেই আছেন, যাঁরা অন্যের নানা সমস্যা নিজেদের ঘাড়ে টেনে নেন। এই আবেগে বাঁধ দিতে হবে। অন্যের সমস্যায় নিজেকে জড়িয়ে ফেললে নিজের বিষয় নিয়ে ভাবার সময় থাকে না। অন্যের সমস্যা ঘাড়ে নিয়ে সঙ্গীর সঙ্গে খিটিমিটি বেধে যায়। অন্যের সমস্যা দূরে সরিয়ে দুজন দুজনকে সময় দিন, নিজেদের বিষয়গুলো নিয়ে কথা বলুন। সম্পর্ক মধুর হবে। তথ্যসূত্র: হাফিংটন পোস্ট।