নিয়মিত পিরিয়ড হওয়াটা নারীর সুস্থতার সঙ্গে ওতোপ্রতভাবে জড়িত। বিবাহিতা বা অবিবাহিতা অনেক নারীই অনিয়মিত পিরিয়ডের সমস্যায় ভুগে থাকেন।

এই সমস্যা দেহের অন্যান্য আরও সমস্যা ডেকে আনে। যেমন পেটে ব্যাথা, চোখের দৃষ্টি কমে যাওয়া, হাত পায়ের গিটে ব্যথা, তলপেট ফুলে যাওয়া, বাচ্চা ধারণে বাধা, জরায়ুতে টিউমারের মতো নানা সমস্যা। বিশেষ করে অবিবাহিতা নারীর অনিয়মিত পিরিয়ডের সমস্যা বেশি দেখা দেয়। সুস্থ থাকতে পিরিয়ডকে নিয়মিত করতে অবলম্বন করতে পারেন ঘরোয়া ২টি চিকিৎসা পদ্ধতি। এই পদ্ধতিতে পিরিয়ডের সমস্যা দূর হবে চিরকালের জন্য।

আদার গুণে সমস্যা দূর

অনিয়মিত পিরিয়ড কে নিয়মিত করুন

প্রথমে ১ কাপ পানিতে ১ চা চামচ মিহি আদা কুচি ৫ থেকে ৭ মিনিট ফুটিয়ে নিন। এই মিশ্রণে সামান্য চিনি বা মধু দিতে হবে। এভাবে দিনে ৩ বেলা খাওয়ার পর পানীয়টি পান করতে হবে। নিয়মিত এক মাস এভাবে পান করলে পিরিয়ড নিয়মিত হয়ে যাবে।

দারুচিনিতে নিয়মিত পিরিয়ড

পিরিয়ডকে নিয়মিত করতে দারুচিনি আরেকটি দারুণ কার্যকরী উপাদান। একগ্লাস দুধের সঙ্গে আধা চা চামচ দারুচিনি গুঁড়ো মিশিয়ে পান করুন। দিনে একবার করে মিশ্রণটি পান করতে হবে ৪ থেকে ৫ সপ্তাহ। পিরিয়ডের সমস্যা থাকলে কেটে যাবে সহজেই। এছাড়া প্রতিদিন এক টুকরো দারুচিনি চিবালেও কাজে দেবে।