কর্কট রাশির জাতক-জাতিকা

0

কর্কট রাশি (Cancer) – [ ২২ জুন – ২২ জুলাই ]

শাসক গ্রহ : চন্দ্র।
শুভ সংখ্যা : ২।
বৈশিষ্ট্য : পানি।
রং : হালকা সবুজ, ক্রিম, কমলা ও সাদা।
ধাতু : রুপা ও প্লাটিনাম।
রত্ন : পান্না, মুন্না ও মুনস্টোন।
শুভ দিন : সোমবার।
সঙ্গী/সঙ্গিনী : মীন, বৃশ্চিক, বৃষ।
প্রতীক : কাঁকড়া, প্রচারক বা শিক্ষক।
জলীয় বৈশিষ্ট্য : সহানুভূতিশীল, অনমনীয়, ধৈর্যশীল, স্পর্শকাতর, পরিবর্তনীয়, সহজে প্রভাবিত।
ব্যক্তিত্ব : মেজাজি সংবেদনশীল, সহানুভূতিশীল ধৈর্যশীল, উচ্চাকাঙ্ক্ষী যত্নবান, মধ্যপন্থী।
বিখ্যাত ব্যক্তি : জ্যোতি বসু, বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়, বাদশাহ হোসেন, জাঁ পল সার্ত্রে, পাবলো নেরুদা, পার্ল এস বাক, সল বোলো, ড. মো. শহীদুল্লাহ, সুনীল গাভাস্কার, আবদুল্লাহ্ আল-মামুন. কাজী আনোয়ার হোসেন, আল মাহমুদ, ফেরদৌসি মজুমদার, খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ, মাহফুজ আনাম।

আপনি যখন কর্কট
জীবনকে পুরোপুরি উপভোগের সবগুলো পথ বুঝি কর্কটই সবচেয়ে ভালো জানে। অন্য কোনো রাশিই কর্কটের মতো এতটা কৌতুকপ্রিয় নয়। আর তার শান্ত, সুবোধ বহিরাবরণ ভেদ করে মজার মানুষটা যদি একবার দুঃসাহসিকভাবে জেগে ওঠে তাহলে তো কথাই নেই। চন্দ্রের রসিকতাবোধ সব সময়ই গভীর। এটা কখনই সস্তা কিংবা অতিরঞ্জিত নয়, কেননা মানুষের আচরণ সূক্ষ্মভাবে পর্যবেক্ষণ করে তবেই এই রসিকতা তারা করে। কর্কটের হাসি পাগল করা। আর এ হাসি অদম্যভাবে সংক্রামক। কর্কট যখন পার্টির কেন্দ্র হওয়ার ভাবাবেগে থাকে, তখন তাকে চিনে নেওয়া যায় সহজে। কর্কটের বিষণ্নতা খুবই গভীর। কর্কট তার স্বাভাবিক ভয়-ভীতিগুলো তার দুষ্টুমিভরা পাগলামি আর কৌতুক দিয়ে আচ্ছাদিত করে রাখে। কিন্তু তারপরও সেই ভয়গুলো দিনে কি রাতে তার মনের মধ্যে অনর্থক কোনো আশঙ্কা কিংবা নামহীন বিপদের শঙ্কা হয়ে ছায়ার মধ্যে জেগে থাকে। কর্কটরাই পারে কল্পনার মাধুরী মিশিয়ে সবচেয়ে সুন্দর কোনো স্বপ্ন নিয়ে তারাদের রাজ্যে ঘুরে বেড়াতে। জীবন তাদেরকে যা কিছু শিখিয়েছে কিংবা ইতিহাস মানবজাতিকে যা কিছু শিখিয়েছে, তার কোনোটাই তারা ক্ষণিকের জন্য বিস্মৃত হয় না। একজন কর্কট তার অতীতকে পোষণ করে, আর তারা সাধারণত খুবই গভীরভাবে দেশপ্রেমিক। কর্কটেরা প্রত্নতত্ত্ববিদদের মতো মানসিকতার গভীর থেকে গভীর পর্যন্ত শুধু অদ্ভুত সুন্দর সবকিছু খুঁজে চলে। প্রত্যেক কর্কটেরই অভিব্যক্তি প্রকাশের ক্ষেত্রে একটা বিস্ময়কর ক্ষমতা রয়েছে। আর কল্পনার উপর কর্কটদের নিয়ন্ত্রণ এতই মাধুর্যময় আর তাদের ভাবাবেগও এতই তীব্র যে, তারা আপনাকেও কল্পনার জগতটা দেখিয়ে দিতে পারবে। তাদের কল্পনাজুড়ে থাকে সুখ-দুঃখ, ভয়, সহানুভূতি, আনন্দ আর যন্ত্রণা। তার দ্রুত স্মৃতিচারণক্ষম মস্তিষ্ক এসব অনুভূতিগুলো সহজেই খুঁজে নেয়।

কেমন যাবে ২০১৭ বিশেষজ্ঞের চোখে
ভবিষ্যফল ২০১৭ অনুসারে বছরের শুরুতে আপনি ধীর গতিতে এগিয়ে যাবেন। আপনার এমন মনে হতে পারে, যে আপনার প্রচেষ্টার যথাযথ ফল পাচ্ছেন না। কিন্তু বাস্তবে এটা আপনার ধৈর্যের পরীক্ষার সময়। বছরের মাঝখানে চাকরি প্রার্থী যুবকরা সাফল্য অবশ্যই পাবে। ব্যাপারিদের জন্য সময় অনুকূল। ব্যবসায় বৃদ্ধি হবে এবং আপনি আর্থিক দিক দিয়ে শক্তিশালী হবেন। এই সময় আপনার নিয়মিত আয় বজায় থাকবে। বছরের দ্বিতীয় ভাগে চাকুরিজীবীরা তাঁদের পরিশ্রমের ফল পদোন্নতি বা বেতন বৃদ্ধির রূপে পেতে পারেন। অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে সুসংবাদ পেতে পারেন। লটারি বা জুয়াতে অর্থ ব্যয় না করলে খুব ভালো হয়। এই সময় প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষার ছাত্রদের পড়াশুনায় একাগ্রতা বজায় থাকবে। স্মরণ শক্তি ভালো হওয়ার জন্য আপনি কঠিন বিষয়কে খুব সহজেই বুঝতে পারবেন। সরকারি পরীক্ষায় সাফল্য পাওয়ার পূর্ণ সম্ভাবনা রয়েছে। যদি প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষার ফলাফল যদি এই সময় আসে তাহলে আশার থেকেও ভালো ফল হবে। কর্কট রাশির জাতকেরা এই সময় পরিজন,পরিচিত এবং বন্ধুদের থেকে প্রত্যেক কাজে সাহায্য পাবেন। প্রেম ও বৈবাহিক জীবনে মধুরতা বাড়বে। এই সময় প্রেম বিষয়ে আপনার ব্যস্ততা বাড়বে এবং প্রেমের সম্পর্কে গভীরতা আসবে। প্রিয়জনের সাথে কোথাও বেড়াতে যাওয়ার পরিকল্পনা হতে পারে। এই সময় আপনি খোশ-মেজাজী থাকবেন। ফিটনেস এর প্রতি আপনার জাগ্রুকতা বাড়বে। বড় অসুখে ভুগছে যারা, তাঁদের স্বাস্থ্যে নিশ্চিত পরিবর্তন দেখতে পাওয়া যাবে। কাজে বিনা কারণে তাড়াহুড়া করা থেকে দূরে থাকলে খুব ভালো হবে।

চাকরি এবং ব্যবসা
বছরের শুরুতে আপনি ধীর গতিতে এগিয়ে যাবেন। আপনার এমন মনে হতে পারে, যে আপনার প্রচেষ্টার যথাযথ ফল পাচ্ছেন না। এপ্রিলের শেষ পর্যন্ত চাকরি বা ব্যবসায় সমস্যা থাকতে পারে। কিন্তু বাস্তবে এটা আপনার ধৈর্যের পরীক্ষার সময়। কর্মস্থলের পরিবেশকে গুরুত্বের সাথে দেখুন। উচ্চপদস্থ অধিকারিকের সাথে মানিয়ে চলুন। ২০১৭ সালে যে কোন ধরনের ঝগড়া থেকে বাঁচুন ও সংযত থাকুন। চাকরি পরিবর্তন করার ভাবনা আপাতত স্থগিত রাখুন। যদি আপনার ইচ্ছার বিরুদ্ধে আপনার বদলি হয় তাহলে আপনাকে যেতে হতে পারে। বছরের মাঝখানে চাকরি প্রার্থী যুবকরা সাফল্য অবশ্যই পাবে। যারা চাকরি বদলাতে চান তাঁদের জন্যও নতুন সুযোগ আসবে। ব্যাপারিদের জন্য সময় অনুকূল। ব্যবসায় বৃদ্ধি হবে এবং আপনি আর্থিক দিক দিয়ে শক্তিশালী হবেন। নতুন কাজে ভাগ্য আপনার সহায় হবে। অনেক দিন ধরে ঝুলে থাকা কাজ সম্পন্ন হবে ও আপনি স্বস্তির নিঃশ্বাস নেবেন। আপনার উন্নতি দেখে অন্যের হিংসা হতে পারে। আপনার বিরোধীর সংখ্যাও দ্রুত বাড়বে। কিন্তু শত্রুরা পরাজিত হবে। এই সময় কাছের বন্ধু ও ব্যবসার সহযোগীর ওপর চোখ বন্ধ করে বিশ্বাস করবেন না। যদি আপনি সাবধানে টাকা লাগান, তাহলে এই বছর অর্থ লাভের সম্ভাবনা রয়েছে। ঝুঁকিপূর্ণ কাজে অর্থ বিনিয়োগ করা থেকে বাঁচুন নাহলে আর্থিক ক্ষতি হতে পারে। লেনদেনের ব্যাপারে সাবধান থাকায় ভালো।

আর্থিক স্থিতি
এই সময় আপনার নিয়মিত আয় বজায় থাকবে। কিন্তু হঠাৎ করে লাভ পাবার বা অতিরিক্ত আয় পাবার আশা পূর্ণ হতে পারে। আপনার সাহস বেশী থাকবে। ২০১৭ রাশিফল অনুসারে আপনি আয়ের নতুন পথ বার করার চেষ্টা করবেন। যদিও আপনাকে আপনার ব্যয় নিয়ন্ত্রনে রাখতে হবে। বছরের দ্বিতীয় ভাগে চাকুরিজীবিরা তাঁদের পরিশ্রমের ফল পদোন্নতি বা বেতন বৃদ্ধির রূপে পেতে পারেন। অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে সুসংবাদ পেতে পারেন। সরকারি বিভাগ বা অন্য কোন জায়গায় আপনার যে টাকা ফেঁসে আছে, তার পেমেন্ট হতে পারে। যদি আপনি সাবধানে টাকা লাগান তাহলে অর্থ প্রাপ্তি হতে পারে। কিন্তু ঝুঁকিপূর্ণ কাজে অর্থ বিনিয়োগ করবেন না। কাউকে টাকা ধার দেবেন না নাহলে ক্ষতি হতে পারে। দীর্ঘকালীন বিনিয়োগ করার জন্য এই সময় ভালো। বছরের শেষ পদ আপনার জন্য বেশী লাভজনক প্রমাণিত হবে। হাতে টাকা থাকায় আপনি বিনিয়োগ বা সঞ্চয়ের যোজনা বানাতে সফল হবেন। লটারি বা জুয়াতে অর্থ ব্যয় না করলে খুব ভালো হয়।

শিক্ষা
শিক্ষার্থীদের বর্তমানে পড়াশুনা সহজ মনে হবে এবং পরীক্ষার ভয়ও থাকবে না। এই সময় প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষার ছাত্রদের পড়াশুনায় একাগ্রতা বজায় থাকবে। স্মরণ শক্তি ভালো হওয়ার জন্য আপনি কঠিন বিষয়কে খুব সহজেই বুঝতে পারবেন। পড়াশুনায় আগ্রহ বাড়বে এবং অভ্যাসের জন্য অনেক সময় বার করতে পারবেন। উচ্চ শিক্ষা তথা গবেষণারত ছাত্ররা পরিশ্রমের তুলনায় বেশী ভালো ফলাফল পাবে। সাহিত্য ও কারিগরি বিষয় পড়া জাতকের জন্য সময় খুব অনুকূল থাকবে। যে ছাত্র উচ্চ শিক্ষা, ইঞ্জিনিয়ারিং বা মেডিক্যাল ক্ষেত্রের সাথে যুক্ত, ওনাকে পরিশ্রম করে সম্পূর্ণ তৈরি থাকতে হবে। সাল ২০১৭ তে আপনার সরকারি পরীক্ষায় সাফল্য পাওয়ার পূর্ণ সম্ভাবনা রয়েছে। যদি প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষার ফলাফল এখনি আসে তাহলে আশার থেকেও ভালো ফল হবে। যে ছাত্র গত পরীক্ষায় অসফল হয়েছিল তাকে এই সময় নিজের আত্মবিশ্বাস বাড়াতে হবে। দীনতা দেখিয়ে কোন লাভ হবে না। মনোবল বৃদ্ধি তথা দূরদর্শিতা আপনার কেরিয়ারের পথে আসা বাধাকে দূর করে আপনার সাফল্যের সম্ভাবনা বাড়াবে।

পারিবারিক জীবন
কর্কট রাশির জাতকেরা এই সময় পরিজন, পরিচিত এবং বন্ধুদের থেকে প্রত্যেক কাজে সাহায্য পাবে। ঘরের কিছু প্রয়োজনীয় জিনিস কেনার জন্য টাকা খরচ হবে। আপনি সন্তানের কাছ থেকে অর্থ সাহায্য পাবার আশা করতে পারেন। ছেলেমেয়েরা নতুন চাকরি ইত্যাদি পাওয়ায় ঘরে অর্থ সাহায্য পাবার আশা রয়েছে। এছাড়াও পরিবারের জন্য কোন নতুন গাড়ি কেনার পরিস্থিতি তৈরি হচ্ছে। বন্ধুর সাহায্যে আপনার কাজ সম্পূর্ণ হতে পারে। আত্মীয়স্বজন বাড়িতে আসতে পারে, যাতে আপনার ব্যয় বৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে। গৃহে মাঙ্গলিক বা ধর্মীয় অনুষ্ঠানের আয়োজন হতে পারে। ২০১৭ সালে ধর্মীয় স্থানের দর্শনের জন্য পরিবার বা বন্ধুর সাথে আপনি কোথাও যেতে পারেন। প্রেম ও বৈবাহিক জীবনে মধুরতা বাড়বে। পরিবারে ভাইবোন ও বন্ধুর সাথে আপনার সম্পর্ক আগের থেকে ভালো হবে। এই সময়কালে আপনি আপনার পরিবার ও বন্ধুর সাথে সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশের আনন্দ নেবেন। মা-বাবার সাহায্যও আপনার সাথে পুরোপুরি রয়েছে। পুরনো পরিচিতদের সাথে দেখা করার এবং পুরনো সম্পর্ককে আবার তরতাজা করার ভালো সময়। আপনার ব্যস্ততা অন্যত্র হওয়া সত্বেও আপনি জীবনসাথীর পুরো সহযোগিতা পাবেন। এই সময় আপনি আপনার জীবনসাথীর জন্য খরচ বেশী করবেন। আপনার ব্যয় নিজের ছোটো ভাইবোনের ওপরও হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

প্রেম জীবন
২০১৭ সালের রাশিফল অনুযায়ী এই সময় প্রেম বিষয়ে আপনার ব্যস্ততা বাড়বে এবং প্রেমের সম্পর্কে গভীরতা আসবে। সব চিন্তা ছেড়ে আপনি খুশির এই মুহূর্ত উপভোগ করুন। কাজের চাপের জন্য প্রেমের জন্য কম সময় পেতে পারেন। যদি আপনার সঙ্গীও আপনার সাফল্য ও খুশিতে যোগদান করতে চান তাহলে ওনাকে স্বাগত জানান। একে অপরকে খুশি রাখতে উপহারের আদান-প্রদান করতে পারেন। প্রিয়জনের সাথে কোথাও বেড়াতে যাওয়ার পরিকল্পনা হতে পারে। আপনি কোন বিশেষ ব্যক্তির প্রতি আকর্ষিত, এটাও সম্ভব হতে পারে। বিপরীত লিঙ্গের জাতকের সাথে আপনি পরিচয় বাড়াবেন এবং ওনার সাথে আপনার বন্ধুত্ব বজায় থাকবে।

স্বাস্থ্য
এই সময় আপনি খোশ-মেজাজী থাকবেন। ফিটনেস এর প্রতি আপনার জাগ্রুকতা বাড়বে। বড় অসুখে ভুগছে যারা, তাঁদের স্বাস্থ্যে নিশ্চিত পরিবর্তন দেখতে পাওয়া যাবে। মানসিক শান্তির জন্য আপনি প্রকৃতির কোলে যাবেন, এমন সম্ভাবনা প্রতীত হচ্ছে। ২০১৭ সালের রাশিফল অনুসারে আপনার নিজের ভেতরে নতুন শক্তির সঞ্চার অনুভুত হবে। আপনি মানসিক শান্তির জন্য আধ্যাত্মিক কাজে আগ্রহ বাড়াবেন, এমন সম্ভাবনা রয়েছে। কাজে বিনা কারণে তাড়াহুড়া করা থেকে দূরে থাকলে খুব ভালো হবে।