মীন রাশি (Pisces) – [ ১৯ ফেব্রুয়ারি-২০ মার্চ ]

মীন রাশি
শাসক গ্রহ : বৃহস্পতি।
শুভ সংখ্যা : ৭।
বৈশিষ্ট্য : পানি।
রং : সাদা, নীল, সবুজ।
ধাতু : রুপা।
রত্ন : রক্ত প্রবাল, হলুদ পোখরাজ, মুনস্টোন।
শুভ দিন : বৃহস্পতি ও সোমবার।
সঙ্গী/সঙ্গিনী : কর্কট, বৃশ্চিক।
প্রতীক : মাছ বা কবি।
জলীয় বৈশিষ্ট্য : শান্ত, সদয়, স্পর্শকাতর, প্রায়ই বিমর্ষ, নৈর্ব্যক্তিক আমুদে।
ব্যক্তিত্ব : গোপনীয়তাপ্রিয়, আধ্যাত্মিক, কাব্যিক, মেজাজি সংবেদনশীল, বাস্তবতাবর্জিত, আত্মোৎসর্গকারী, পলায়নপর, ভদ্র, উদ্দেশ্যহীন।
বিখ্যাত ব্যক্তি : আলবার্ট আইনস্টাইন, জন স্টাইনবেক, ভিক্টর হুগো, ইউরি গ্যাগারিন, বব ফিশার, লিজ টেলর, সম্রাট হুমায়ুন, গ্রাহাম বেল, ইবসেন, আল্লামা ইকবাল, জাদুকর পিসি সরকার, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, কাইয়ুম চৌধুরী, ফেরদৌসী প্রিয়ভাষিণী, ফরিদুর রেজা সাগর, তামিম ইকবাল।

 

আপনি যখন মীন
মীনের স্বভাবে অন্যান্য রাশিগুলোর বৈশিষ্ট্যের মিশ্রণ থাকে, আর সেটা বহন করা একজন মীন জাতকের পক্ষে যথেষ্ট কঠিন হয়ে দাঁড়ায়। যত বেশি শৈল্পিক ও সৃষ্টিশীল পরিবেশ হবে, যত বেশি অবসর এবং দুর্বোধ্য পরিবেশ হবে তত বেশি এমন স্থানে মীনকে খুঁজে পাওয়া যাবে। বিয়ের সূত্রে কিংবা উত্তরাধিকার সূত্রে না পেলে মীনদের মধ্যে কাড়ি কাড়ি টাকাওয়ালা মানুষ তেমন একটা নেই। তাই বলে টাকার বিরুদ্ধে তাদের কোনো ক্ষোভ নেই। আর দশটা রাশির মানুষরা যাকে পুরোনো কয়েন হিসেবে বিবেচনা করেন, মীন সেগুলো আনন্দ সহকারে গ্রহণ করে নিজের কাছে স্বযত্নে সাজিয়ে রাখবে। নেপচুনসুলভ বৈশিষ্ট্যের অধিকারী যেকোনো হূদয় সাধারণত লোভহীন হয়। মীনও তার ব্যতিক্রম নয়। তবে তাদের মধ্যে তীব্রতার অভাব লক্ষ্য করা যায়। আর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো, এরা ভবিষ্যতের ব্যাপারে পুরোপুরি পরোয়াহীন হয়। আশপাশের সবাই যখন মাথা গোঁজার ঠাঁই খুঁজতে ফ্ল্যাটের দাম কমলো কী বাড়লো সেই চিন্তাতে অধীর, মীন হয়তো তখন ভাবছেন নিজের পছন্দের কোনো পারফিউম একটা এক্সট্রা কিনে রাখার কথা। বর্তমানকে ঠাণ্ডা মাথায় মেনে নেওয়ার ক্ষমতা রয়েছে। মীনের কল্পনাশক্তি ও বুদ্ধিমত্তা যেখানে প্রয়োগের সুযোগ আছে সেখানে মীন দারুণ জনপ্রিয়তা অর্জন করতে পারে। এদের শৈল্পিক প্রতিভা অসাধারণ। যুক্তি প্রয়োগে কোনো জিনিস অনুধাবনের চেয়ে সামান্য মনোযোগেই তারা অনেক জটিল সমস্যার গভীরে প্রবেশ করতে পারে। তারা বিশ্বস্ত, গৃহবিমুখী, দয়ালু ও সংযমী। নতুন নতুন আইডিয়া তাদের মাথা থেকে বের হয়। আন্তরিক আচরণ ও অলসতাপূর্ণ ভালোমানুষীর কারণে তারা সবাই খুব দ্রুত সবার প্রিয় মানুষটি হয়ে ওঠেন। নিজেদের স্বপ্ন এবং জীবনযাপনের ব্যাপারে নিজস্ব স্টাইলের ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতা ছাড়া অন্য সব বাধার ব্যাপারেই তারা খুবই নির্লিপ্ত। অপমান, অপবাদ, ঝগড়া-বিবাদ এসব ব্যাপারেও তারা একেবারেই ভাবলেশহীন। মীন হলো অন্য রাশিগুলোর বৈশিষ্ট্য নিয়ে গঠিত একটি জটিল রাশি।

কেমন যাবে ২০১৭ বিশেষজ্ঞের চোখে
এই বছর আপনাকে কঠিন পরিশ্রম করতে হবে। চাকুরিজীবিদের এই বছরের দ্বিতীয় ভাগে পদোন্নতি হবার সম্ভাবনা রয়েছে। ব্যবসায়ীরা কর্তব্য-নিষ্ঠা এবং পরিশ্রমের কারণে নিজের আয় বাড়াতে সফল হবেন। শেয়ার বাজারের সাথে যুক্ত ব্যক্তি কোন দীর্ঘকালীন বিনিয়োগের ব্যাপারে ভাবতে পারেন। জুয়া এবং লটারি থেকে দূরে থাকাই ভালো। আর্থিক দিক দিয়ে এই বছর আপনার জন্য সাধারণ থাকবে। বছরের মধ্য থেকে আর্থিক লাভ হবার সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে যাতে আপনার অর্থ সম্পর্কে চিন্তার সহজে নিবারণ হয়ে যাবে। দীর্ঘকালীন নিয়োগের জন্য ভালো সময়। বছরের শেষ পদ আপনার জন্য বেশি লাভদায়ক হবে। এই বছর পড়াশুনায় আপনার একাগ্রতা বাড়বে। সরকারি পরীক্ষায় সাফল্য পাবার পূর্ণ সম্ভাবনা রয়েছে। যে শিক্ষার্থী পড়ার জন্য বিদেশ যেতে চায়, তাদের প্রচেষ্টা শক্তিশালী করতে হবে। ২০১৭ এর ভবিষ্যফল অনুসারে উচ্চশিক্ষার শিক্ষার্থীর জন্য এই সময় কঠিন পরিশ্রমের হবে। এই বছর আপনার পারিবারিক জীবনে সামঞ্জস্য আনার আবশ্যকতা রয়েছে। অযথা ঝগড়া থাকে বাঁচুন এবং প্রত্যেকের ভাবনাকে সম্মান করতে শিখুন। বাড়িতে কোন ধার্মিক ও মাঙ্গলিক অনুষ্ঠান হলে মন প্রসন্ন থাকবে। আপনি কোন নতুন গাড়ি বা জমি-জায়গা কিনতে পারেন। জীবনসঙ্গীর সাথে কোথাও বাইরে ঘুরতে যাবার সম্ভাবনা রয়েছে। সন্তানের উন্নতিতে আপনি আনন্দ অনুভব করবেন। যদি কাউকে প্রেম প্রস্তাব দেবার কথা ভাবছেন তাহলে দেরি করবেন না। আপনার সদর্থক উত্তর পাবার সম্ভাবনা রয়েছে। পুরনো প্রেমিক-প্রেমিকারা নিজের সম্পর্কের ক্ষেত্রে কিছু অস্বাচ্ছন্দ্য অনুভব করতে পারেন। ধৈর্য হারাবেন না এবং নিজের ব্যবহারে রুক্ষতা ও কটুতা আসতে দেবেন না। আপনার স্বাস্থ্য সম্পর্কে একটু সাবধান হওয়া প্রয়োজন। যে ব্যাক্তি মধুমেহ ও স্থূলতার সমস্যায় ভুগছেন, তাঁদের নিজের খেয়াল রাখা প্রয়োজন। এই সময় এই রোগ আপনাকে অধিক প্রভাবিত করতে পারে। গাড়ি চালানোর সময় সাবধান থাকবেন।

চাকরি এবং ব্যবসা
২০১৭ এর ভবিষ্যফল অনুযায়ী এই বছর আপনাকে কঠিন পরিশ্রম করতে হবে। যদি কোন নতুন চাকরির খোঁজে রয়েছেন তবে আপনার পুরনো চাকরিকে একেবারে জলাঞ্জলি দেবেন না। আগে কোন নতুন চাকরির ব্যবস্থা করে রাখুন। চাকুরিজীবিদের এই বছরের দ্বিতীয় ভাগে পদোন্নতি হবার সম্ভাবনা রয়েছে। সহকর্মীদের সাথে মিলেমিশে থাকা আপনার জন্য লাভজনক হবে। কর্মস্থলে অযথা ঝগড়াঝাঁটি থেকে বাঁচুন। আপনার উচ্চ আধিকারীকের কাছ থেকে মান সম্মান, পুরস্কার বা বাহবা পেতে পারেন। ব্যবসায়ীরা কর্তব্য-নিষ্ঠা এবং পরিশ্রমের কারণে নিজের আয় বাড়াতে সফল হবেন। ব্যবসার দিক থেকে এই সময় উত্তম। দীর্ঘ সময় ধরে আটকে থাকা আপনার কাজ এবার দ্রত গতিতে হবে। আপনি নতুন কাজে হাত দেবার জন্য আগ্রহী থাকবেন। কিন্তু তাড়াহুড়ো করবেন না এবং বুঝে-শুনে অর্থ বিনিয়োগ করুন। শেয়ার বাজারের সাথে যুক্ত ব্যক্তি কোন দীর্ঘকালীন বিনিয়োগের ব্যাপারে ভাবতে পারেন। জুয়া এবং লটারি থেকে দূরে থাকাই ভালো।

আর্থিক স্থিতি
২০১৭ সালের রাশিফল অনুসারে আর্থিক দিক দিয়ে এই বছর আপনার জন্য সাধারণ থাকবে। বছরের মধ্য থেকে আর্থিক লাভ হবার সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে যাতে আপনার অর্থ সম্পর্কে চিন্তার সহজে নিবারণ হয়ে যাবে। ব্যবসায়ীরা কোন বন্ধু বা পারিবারিক ব্যক্তি থেকে আর্থিক সাহায্য পেতে পারেন। আপনি সাবধানে টাকা লাগিয়ে অর্থ লাভ বাড়াতে পারেন। ঝুঁকিপূর্ণ কাজে অর্থ নিয়োগ এবং কাউকে টাকা ধার দেবেন না। দীর্ঘকালীন নিয়োগের জন্য ভালো সময়। বছরের শেষ পদ আপনার জন্য বেশি লাভদায়ক হবে। বিনিয়োগ বা সঞ্চয় করার যোজনাতে আপনি সম্পূর্ণ রূপ দিতে পারবেন।

শিক্ষা
পড়াশুনা করছে যেসব ছাত্র তাদের জন্য এই সময় যথেষ্ট ভালো। এই বছর পড়াশুনায় আপনার একাগ্রতা বাড়বে। সরকারি পরীক্ষায় সাফল্য পাবার পূর্ণ সম্ভাবনা রয়েছে। যদি প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষার ফলাফল সম্প্রতি আসে তাহলে আপনার জন্য অপেক্ষাকৃত ভালো হতে পারে। রাশিফল ২০১৭ অনুসারে আপনার শিক্ষকের থেকে আপনি পূর্ণ সহযোগিতা পাবেন। শিক্ষায় মনের মতো দিক নির্ণয় করার জন্য বছরের মধ্য থেকে সময় বিশেষ অনুকূল থাকবে। যে শিক্ষার্থী পড়ার জন্য বিদেশ যেতে চায়, তাদের প্রচেষ্টা শক্তিশালী করতে হবে। উচ্চশিক্ষার শিক্ষার্থীর জন্য এই সময় কঠিন পরিশ্রমের হবে।

পারিবারিক জীবন
এই বছর আপনার পারিবারিক জীবনে সামঞ্জস্য আনার আবশ্যকতা রয়েছে। অযথা ঝগড়া থাকে বাঁচুন এবং প্রত্যেকের ভাবনাকে সম্মান করতে শিখুন। বাড়িতে কোন ধার্মিক ও মাঙ্গলিক অনুষ্ঠান হলে মন প্রসন্ন থাকবে। ২০১৭ এর রাশিফল অনুযায়ী আপনি কোন নতুন গাড়ি বা জায়গা-জমি কিনতে পারেন। আপনার জীবনসঙ্গীকে কোন দামী উপহার দিয়ে আপনি আপনার বৈবাহিক জীবন মধুরময় করে তুলতে পারেন। মা-বাবার স্বাস্থ্য আশ্চর্যজনক ভাবে পরিবর্তিত হবে। জীবনসঙ্গীর সাথে কোথাও বাইরে ঘুরতে যাবার সম্ভাবনা রয়েছে। ধর্মীয় স্থান দর্শনের জন্য যাত্রা করার সম্ভাবনা রয়েছে। সন্তানের উন্নতিতে আপনি আনন্দ অনুভব করবেন।

প্রেম জীবন
প্রেম প্রস্তাবকারীদের জন্য সময় খুব ভালো। আপনার মনে প্রেম জাগবে। কাউকে প্রেম প্রস্তাব দেবার কথা ভাবছেন তাহলে দেরি করবেন না। আপনার সদর্থক উত্তর পাবার সম্ভাবনা রয়েছে। রাশিফল ২০১৭ বলছে যে আপনার মনে কোন বিশেষ ব্যক্তির প্রতি অনুরাগ জাগতে পারে। পুরনো প্রেমিক-প্রেমিকারা নিজের সম্পর্কের ক্ষেত্রে কিছু অস্বাচ্ছন্দ্য অনুভব করতে পারেন। ধৈর্য হারাবেন না এবং নিজের ব্যবহারে রুক্ষতা ও কটুতা আস্তে দেবেন না। সম্পর্কে তর্ক ক্ষমতার বেশী ব্যবহার করবেন না। আপনার কথাবার্তার ওপর বিশেষ নজর দিন এবং নিজের সঙ্গীর সাথে রূঢ় ভাষায় কথা বলবেন না।

স্বাস্থ্য
আপনার স্বাস্থ্য সম্পর্কে একটু সাবধান হওয়া প্রয়োজন। কোথাও বেড়াতে যাওয়ার পরিকল্পনা করে আপনি মানসিক অশান্তিকে দূর করতে পারেন। পরিবারের লোকের সাথে কিছু মুহূর্ত শান্তিতে অবশ্যই কাটান। যে ব্যক্তি মধুমেহ ও স্থূলতার সমস্যায় ভুগছেন, তাঁদের নিজের খেয়াল রাখা প্রয়োজন। ২০১৭ সালের রাশিফল অনুসারে এই রোগ আপনাকে অধিক প্রভাবিত করতে পারে। নিজের ওপর অত্যাবশ্যক চাপ দেবেন না আর অর্থহীন কথা থেকে নিজেকে দূরে রাখুন। আরাধনা এবং যোগাভ্যাস থেকে আপনি মানসিক ও শারীরিক স্বাস্থ্য পেতে পারেন। গাড়ি চালানোর সময় সাবধান থাকবেন।