ঘরোয়া উপায়ে খুশকি দূর করুন

0

সব বয়সী মানুষের কম বেশি খুশকির সমস্যা হতে পারে। অনেক সময় চুলের খুশকি নিয়ন্ত্রণে রাখাটা অনেকের কাছেই যেন অসাধ্য ব্যাপার হয়ে দাঁড়ায়। কিন্তু খুশকি দূর করা যে খুব কষ্ট সাধ্য ব্যাপার তাও নয়। নানা প্রাকৃতিক উপাদান ব্যবহার করে ঘরে বসেই বেয়াড়া খুশকির লাগাম টেনে ধরতে পারেন আপনি।

জেনে নিন কীভাবে দূর করবেন বেয়াড়া খুশকি———-

১. জবা ফুল, আমলকি ও জলপাই : খুশকি দূর করতে আপনার হাতের নাগালে থাকা জবা ফুল, আমলকি ও জলপাই ব্যবহার করতে পারেন। জবা ফুল, আমলকি ও জলপাই একসঙ্গে বেটে পেস্ট করে চুলে লাগান। আধ ঘণ্টা পর শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলুন, খুশকি কমে যাবে।

২. দুর্বা ঘাস ও নিমপাতা : খুশকি দূর করতে দুর্বা ঘাস ও নিমপাতার জুড়ি নেই। দুর্বা ঘাস ও নিমপাতা বাটা, ভিনেগার ও শসার রস মিশিয়ে পেস্ট করে মাথার তালুতে লাগান। এরপর আধঘণ্টা পর শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। খুশকি চলে যাবে।

৩. আমলকির রস ও নারিকেল তেল: কাঁচা আমলকি ছেঁচে রস করে নারকেল তেলের সঙ্গে মিশিয়ে চুলায় গরম করুন। এরপর রোদে ২-৩ দিন শুকিয়ে বোতলে ভরে রেখে দিন। সপ্তাহে ২ দিন সেই তেল মাথার তালুতে ঘষুন। খুশকি চলে যাবে।

৪. মেথি বাটা : মেথি বাটা, আমলকির রস, ডিমের সাদা অংশ ও টকদই পানিতে পেস্ট করে মাথায় লাগিয়ে দিয়ে আধ ঘণ্টা পর্যন্ত রেখে দিন। এরপর চুল শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন তাতেও খুশকি চলে যাবে।

৫. আমলকি ও শিকাকাই গুঁড়ো : আমলকি ও শিকাকাই গুঁড়ো, নারকেল তেলের সঙ্গে পেস্ট করে চুলে দিন। শুকিয়ে গেলে শ্যাম্পু করলে খুশকি চলে যাবে।

৬. পেঁয়াজের রস: খুশকি দূর করতে পেঁয়াজের রসে বেশ উপকারি। পেয়াজ রস করে মাথার তালুতে লাগান। ২০ মিনিট রেখে শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এতে ভালো ফল পাওয়া যাবে।

৭. লেবু রস : লেবুর রস খুশকি দূর করে। এজন্য শ্যাম্পু করার পর এক মগ পানিতে লেবু মিশিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। আর এতে করে চুলে সুগন্ধ বের হবে।

৮. লেবুর রস ও নারকেল তেল : খুশকি দূর করতে লেবুর রসের সঙ্গে নারকেলের তেল মাথার তালুতে লাগানো যেতে পারে। এক চা চামচ লেবুর রসের সঙ্গে ৫ চা চামচ নারকেলের তেল ভালো করে মিশিয়ে নিন। তারপর মাথার তালুতে লাগিয়ে ৩০-৩৫ মিনিট পর শ্যাম্পু করে ফেলুন। এভাবে ব্যহারের কিছুদিন পর দেখবেন খুশকি দূর হয়ে গেছে।