ম্যালেরিয়ার মশা ব্লাড ক্যানসারের জন্য দায়ী!

0

ই-হেলথ টোয়েন্টিফোর ডেস্ক// মশার কামড় থেকেও ব্লাড ক্যানসার! অবাক হচ্ছেন? অবাক হওয়ার মতোই বইকি। তা হলে তো বিশ্বের কোটি কোটি মানুষ রক্তের ক্যানসারে মরতেন। না, এভাবে সরলীকরণ না-করে বরং বলা ভালো, মশার কামড়ে বাচ্চাদের ম্যালেরিয়া হলে, পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ায় ব্লাড ক্যানসারের ঝুঁকি প্রবল।

হ্যাঁ, মার্কিন বিজ্ঞানীদের সাম্প্রতিক এক গবেষণায় এই তথ্য সামনে এসেছে।

ম্যালেরিয়ার সঙ্গে ব্লাড ক্যানসারের সম্পর্ক কেমন? গবেষকরা বলছেন, ম্যালেরিয়ার সঙ্গে লড়াই করতে যে উত্‍‌সেচক শরীরে অ্যান্টিবডি তৈরি করে, সেই একই উত্‍‌সেচক DNA-এর মারাত্মক ক্ষতি করে। যা শিশুদের শরীরে খুবই আক্রমণাত্মক টাইপ ব্লাড ক্যানসারের ঝুঁকি বাড়িয়ে তোলে।

আফ্রিকার নিরক্ষীয় অঞ্চল ‘lymphoma belt’ নামে পরিচিত। তার কারণ, বিশ্বের অন্য জায়গার শিশুদের সঙ্গে যদি তুলনা করা হয়, দেখা যাবে, আফ্রিকার এই বাচ্চাদের ‘Burkitt লিম্ফোমা’ (ব্লাড ক্যানসার)-য় আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা ১০ গুণ বেশি। ঠিক সময়ে চিকিত্‍‌সা না-হওয়ায়, আফ্রিকার এই অঞ্চলের শিশুরা বেশি মারাও যায় ব্লাড ক্যানসারে।

গবেষকরা লক্ষ করেন, আফ্রিকার এই অঞ্চলে ম্যালেরিয়ার সংক্রমণও বেশি। কিন্তু, ম্যালেরিয়ার সঙ্গে ব্লাড ক্যানসারের কোনো সম্পর্ক থাকতে পারে, এটা ধারণাতেই ছিল না। গত প্রায় ৫০ বছর ধরে বিজ্ঞানীরা চেষ্টা করছিলেন এই দুটি রোগের কোনও যোগসূত্র আছে কি না, খুঁজে বের করার। দীর্ঘ গবেষণার পর ধরা পড়ে, ম্যালেরিয়ার সঙ্গে লড়াই করতে যে উত্‍‌সেচক শরীরে অ্যান্টিবডি তৈরি করে, সেই একই উত্‍‌সেচক DNA-এর মারাত্মক ক্ষতি করে। যার শিশুরা ব্লাড ক্যানসারে আক্রান্ত হয়।

ম্যালেরিয়ার জন্য যে প্যারাসাইট দায়ী, সেটি লোহিত রক্তকণিকা ছাড়াও লিভার কোষের ক্ষতি করে। আর ‘Burkitt লিম্ফোমা’ তৈরি হয় বি-লিম্ফোসাইট থেকে। ইঁদুরের ওপর পরীক্ষা চালিয়ে তারা দেখেন, একই উত্‍‌সেচক যেটা ম্যালেরিয়ার সঙ্গে লড়াই করার জন্য অ্যান্টিবডি তৈরি করে, সেই উত্‍‌সেচকই DNA-কে ক্ষতিগ্রস্ত করছে। যার জন্য Burkitt লিম্ফোমা’ হচ্ছে।

মার্কিন Rockefeller University-র এই বিজ্ঞানীদের গবেষণাপত্রটি সম্প্রতি প্রকাশিত হয়েছে জার্নাল সেলে।